কলম পাতুরি

ভাবনা আপনার প্রকাশ করবো আমরা

Home » পুজো সংখ্যা ১৪২৯ » কবিতা » “আমার দুর্গা”

“আমার দুর্গা”

আমার দুর্গা কবিতা – উজ্জ্বল সামন্ত

দুর্গা আসে,

বাঙালি তথা ভারতবর্ষের শ্রেষ্ঠ উৎসবে

অকালবোধনে শারদীয়ার আশ্বিনে ।

বনেদি বাড়ির আট চালায় ,ঠাকুর দালানে,

লক্ষ কোটি টাকার পূজা প্যান্ডেলে আড়ম্বরে।।

আমার দুর্গা আসে ,অন্ধকারে 

ভাঙা ঘরের একফালি চাঁদের আলোয়।

ছোট্ট ফুটো থালার বাসি পান্তাভাতে,

গালে শুকিয়ে যাওয়া অশ্রুর ছাপে ।।

আমার দুর্গা আসে রাস্তায় ফুটপাতে,

ছেঁড়া মলিন পোশাকে লজ্জা টুকু ঢাকে,  

ক্ষুধার জ্বালায় জ্বলে জঠর অন্তরালে,

সহায় সম্বলহীন নিদ্রাহীন একফালি ত্রিপলে ।।

আমার দুর্গা সে তো সহ্য সীমা ধারণে,

লোলুপ দৃষ্টি যখন ভেদ করতে চায় পোশাক

শত রাগ দুঃখ কষ্ট দাঁতে দাঁত চেপে সহ্যে।

রাস্তা ঘাটে গৃহে কর্মক্ষেত্রে অসম্মানে ভোগে ।।

আমার দুর্গা আসে নতুন সংসারে

লাঞ্ছনা, বঞ্চনা, অপমান, তিরস্কারে।

পড়ন্ত বয়সে সংসারের প্রয়োজন ফুরিয়ে,

বৃদ্ধাশ্রমে নয়তো ভিখিরীনী মা ভবঘুরে।

আমার দুর্গা আসে নারকীয় যন্ত্রণায় গভীর রাতে,

শরীর থেকে নিংড়ে নেওয়া রক্তে, নখের আঁচড়ে।।

আমার দুর্গা লৌকিক ভক্তি ও ভাবের উদয়ে 

ধন্য বারাঙ্গনার আঙিনা, মূর্তির মৃত্তিকায় মিশ্রিত হয়ে।।

আমার দুর্গা কবিতা – সমাপ্ত

error: Content is protected !!